রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

ইমরান খানের বিরুদ্ধে ভারতের আদালতে মামলা



dc7a30312da50f90376f4cf229c6fb37-5b6c7d9486682

অনলাইন ডেস্ক:

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে শনিবার (২৮ সেপ্টেমবর) মামলা দায়ের করা হয়েছে বিহারের মুজফ্‌ফরনগরের এক আদালতে। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের ভাষণে কাশ্মীরিদের পক্ষ নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পাশাপাশি তিনি সতর্ক করে বলেছেন, ভারত এবং পাকিস্তান পরমাণু শক্তিধর দুই দেশ। এই দুই দেশের মধ্যে যদি যুদ্ধ বাধে তবে বিশ্বকে এর পরিণতি ভোগ করতে হবে।

গত ৫ আগস্ট সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের মাধ্যমে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয় ভারত। ফলে জাতিসংঘে দেয়া ভাষণে ভারতের নিন্দা জানিয়েছেন ইমরান খান। তার ওই দীর্ঘ ৫০ মিনিটের ভাষণ ঘিরে সারা বিশ্বেই আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে।

এদিকে, জাতিসংঘে তার ওই ভাষণের পরেই ভারতের তরফ থেকে তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার বিহারের মুজাফফরপুর জেলার এক আদালতে ইমরান খানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সুধীর কুমার ওঝা নামের এক আইনজীবী এই মামলাটি করেছেন। ওই আইনজীবীর অভিযোগ, জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ভারতকে পরমাণু যুদ্ধের হুমকিসহ বিভিন্ন আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন ইমরান খান।

আদালতের কাছে ওই আইনজীবী আবেদন জানিয়েছেন যে, তার অভিযোগের ভিত্তিতে পাক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে যেন সরাসরি এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দেয়া হয়।

সুধীর কুমার ওঝা ওই পিটিশনে বলেন, সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলে ভারতের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে পাক প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য লোকজনের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করবে এবং দেশজুড়ে বিশৃঙ্খলা তৈরি হবে।

শুক্রবার জাতিসংঘের ওই ভাষণে কাশ্মীর পরিস্থিতি তুলে ধরে ইমরান খান সতর্ক করে বলেন, কাশ্মীর থেকে কারফিউ উঠে গেলে সেখানে রক্তবন্যা বয়ে যেতে পারে। হাজার হাজার কাশ্মীরিকে গৃহবন্দি এবং গ্রেফতার করায় ভারতের নিন্দা জানান তিনি। কাশ্মীর পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে জাতিসংঘকে পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন যে, এটা জাতিসংঘের জন্য একটি পরীক্ষা।