বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

জয়ী হয়েছে ভারতবর্ষ, জয়ী দেশবাসী: মোদি



resize-350x300x1x0image-180806-1558649424ডেস্ক রিপোর্টঃ

ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে থাকার পরই জয় উদযাপন শুরু করে বিজেপি (ভারতীয় জনতা পার্টি)।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নয়াদিল্লিতে দলীয় কার্যালয়ে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের টানা দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসার ক্ষণ উদযাপন করে বক্তব্য দেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র দমোদার মোদি।

তিনি দলের প্রার্থীদের ভোট দেয়ায় জনগণকে ধন্যবাদ জানান। এই জয় ভারতবাসী ও ভারতবর্ষের বলে উল্লেখ করেন। বক্তব্যে বিজেপি নেতা মোদি বলেন, ‘আজ এই ফকিরের ঝোলা পূর্ণ করে দিয়েছে দেশবাসী।

টানা দ্বিতীয়বার জয়ের পর তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং যারা ভোটের সঙ্গে যুক্ত, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।

কেউ যদি জয়ী হয়ে থাকে, তাহলে জয়ী হয়েছে ভারতবর্ষ, জয়ী হয়েছে দেশবাসী। আজ আমার ভাবনা স্পষ্ট করে দিয়েছে জনতা। এই ভোটে কোনো প্রার্থী, কোনো নেতা লড়েনি, লড়েছে দেশের আমজনতা। প্রান্তিক নাগরিকের ভাবনাও ভারতের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

বিজেপি ও জোটের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মোদি বলেন, ‘আমি বিজেপির সব কর্মকর্তা, এনডিএর কর্মীদের ধন্যবাদ জানাই। দেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য সব বিজয়ী প্রার্থী কাজ করবেন।

যেসব বিধানসভায় প্রতিনিধিরা জয়ী হয়ে এসেছেন, তাদেরও আমি অভিনন্দন জানাই। ভারতের সংবিধানের প্রতি সমর্পিত ও ঐক্যের প্রতি সমর্পিত লোকজনের এই জয়।

সবার সঙ্গে কাঁধ মিলিয়ে আমরা কাজ করব। বিজেপির কোটি কোটি কর্মকর্তার পরিশ্রম; গর্ব হয় যে এমন দলে আছি, যেখানে এরকম কর্মী রয়েছেন।

কোটি কোটি কর্মকর্তার মনে শুধু একটাই ভাবনা- ভারত মাতা কি জয়।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের জনসাধারণ আমাদের ওপর আস্থা রেখেছেন, তাই আমাদের দায়িত্ব আরও বেড়ে গেল।

আমি আজ বলতে চাই, আপনারা আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন, তা পালন করব। আমি দেশবাসীকে আজ অবশ্যই বলব, এটা আমার প্রতিজ্ঞা বা প্রতিশ্রুতি মনে করুন, আপনারা আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন, আগামী দিনে আমি খারাপ উদ্দেশ্যে, খারাপ মনোভাব নিয়ে কোনো কাজ করব না।

দ্বিতীয়ত, দেশবাসী, আপনারা আমাকে যে বিরাট দায়িত্ব দিয়েছেন, তার জন্য আমি বলব, আমার জন্য আমি কিছুই করব না। তৃতীয়ত, আমার সময় শুধু এবং শুধুই দেশবাসীর জন্য। কখনও কোনো ভুল হলে আমাকে ধরিয়ে দেবেন।’

বিজেপি নেতা অমিত শাহকে নিয়ে মোদি বলেন, ‘ভারতীয় জনতা পার্টির পরিশ্রমী অধ্যক্ষ অমিত শাহ। বিজেপির বিশেষত্ব এটাই যে, আমরা কখনও দু’জন ছিলাম, কিন্তু আদর্শ থেকে বিচ্যুত হইনি। সেই দুই থেকেই আমরা দু’বার ক্ষমতায় এসেছি।

এর আগে বক্তব্য দেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সভাপতি অমিত শাহ। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আমরা ধন্যবাদ জানাই। দেশের সব রাজ্যের পার্টি অফিসে আগত কর্মী এবং দেশবাসীকে আমার প্রণাম।

স্বাধীনতার পর দেশে সবচেয়ে বড় জয় পেয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। এই ঐতিহাসিক বিজয়ের জন্য বিজেপির পক্ষ থেকে ১২৫ কোটি দেশবাসীকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই।

এই জয় দেশবাসীর জয়, ভারতের কোনায় কোনায় কাজ করা লাখ লাখ বিজেপি কর্মীর জয়। এই জয় ‘সবকা সাথ সবকা বিকাশ’-এর। মোদিজি বিপুল জনসমর্থনের মধ্য দিয়ে সারা দেশে যে প্রচার করেছেন তার সাফল্য মিলেছে।

বিভিন্ন কারণে এটা ঐতিহাসিক জয়, ৫০ বছর বাদে দেশে প্রথম একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে কোনো দল সরকার গঠন করতে যাচ্ছে।’