সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

দশ টাকার প্রলোভন দেখিয়ে বড়লেখায় শিশু ধর্ষণ



rape-+victim

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার দুর্গম এলাকায় স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে ১০ টাকা দেয়ার প্রলোভন দিয়ে এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেছে এক যুবক। হাত-পা বেঁধে তাকে ধর্ষণ করা হয়। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা করান। এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ।

নির্যাতিতা শিশু  দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউপির একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী (৭)।

গ্রেফতার হওয়া যুবক জাহাঙ্গির আলম (১৮) বোবারথল ইসলামনগর গ্রামের লোকমান হোসেনের ছেলে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার বোবারথল গ্রামের কড়ইছড়া নামক নির্জন স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

বুধবার আদালতের মাধ্যমে গ্রেফতারকৃত যুবককে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার রাতে নির্যাতিত শিশুর মায়ের মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ ও নির্যাতিতার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুর দেড়টায় স্কুল ছুটির পর দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া সহোদরের (৮) সঙ্গে নির্যাতিত শিশুটি বাড়ি ফিরছিল। পথে বড় ভাই পিছনে পড়ে যায়। এ সুযোগে জাহাঙ্গির আলম ১০ টাকা দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে শিশু শিক্ষার্থীকে ডেকে নেয়।

কড়ইছড়া নামক নির্জন স্থানে হাত, পা বেঁধে মুখ ও গলা চেপে ধরে তাকে ধর্ষণ করে। শিশুটির চিৎকারে লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যান। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

বড়লেখা থানার ওসি মোহাম্মদ সহিদুর রহমান জানান, নির্যাতিতা শিশু শিক্ষার্থীর মায়ের দায়ের করা ধর্ষণ মামলায় রাতেই পুলিশ অভিযুক্ত জাহাঙ্গির আলমকে গ্রেফতার করেছে।