সোমবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

“ধ্রুবক মেধা যাচাই পরীক্ষা ২০১৭” এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন



received_1205954279506572

এম.সি কলেজ প্রতিনিধি:

সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শতবর্ষীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সিলেটের এম.সি. কলেজের গণিত বিভাগ পরিচালিত উদ্দসী শিক্ষার্থীদের সংগঠন ‘ধ্রুবক ক্লাব’ আয়োজিত “ধ্রুবক মেধা যাচাই পরীক্ষা ২০১৭” এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শুক্রবার বিকেলে গণিত বিভাগের একটি কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে প্রাইজবন্ড, ক্রেস্ট, সাটিফিকেট সহ আরো কিছু উপহার তুলেদেন অতিথিরা।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ আনোয়ার হোসেন চৌধুরী। প্রধান অথিতি ছিলেন গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক অরুন চন্দ্র পাল। বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মদন মোহন কলেজের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব রঞ্জিত মোহন্ত সহ অন্যান্য শিক্ষকমন্ডলী।  এছাড়া উপস্থিত ছিলেন মেধা তালিকায় স্থান পাওয়া ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা ও তাদের অভিভাবকবৃন্দ।

received_1205953492839984

অনুষ্ঠান  শুরু হয় গণিত বিভাগের ও ধ্রুবক ক্লাবের বেশ কিছু স্মরনীয় মুহুর্তের স্থির চিত্র নিয়ে তৈরী করা এক নান্দনিক স্লাইড শো-র মাধ্যমে। এর পরে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত করেন মাস্টার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র মশিউর রহমান পরে গীতা পাঠ করেন অনার্স চতুর্থ বর্ষের ছাত্র প্রনয় চক্রবর্তী। পরবর্তীতে ক্লাবের সভাপতি রেদওয়ানুল হক চৌধুরী তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে ক্লাবের বিভিন্ন কার্যাবলি ও সফলতা সকলের কাছে তুলে ধরেন।

এরপরে অভিভাবকদের পক্ষ থেকে মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন কিশোরী মোহন বালক উচ্চ বিদ্যালয় ও বাংলাদেশ ব্যাংক স্কুল এর সম্মানিত শিক্ষক। তারা সকলে ক্লাবের কার্যক্রম ও সফলতায় প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন।

 received_1205952986173368

প্রধান অথিতির বক্তব্যে গণিত বিভাগের প্রভাষক দিলীপ চন্দ্র পাল ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের এবং অভিভাবকদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা দেন। সন্তানদের প্রতি মায়েদের বিশেষ খেয়াল রাখার আহ্বান জানান। কারণ একজন মা হচ্ছে সন্তানের প্রথম শিক্ষক।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মদন মোহন কলেজের সম্মানিত শিক্ষক রঞ্জিত মোহন্ত বলেন যে শিশুরা খুবই অনুকরন প্রিয়। তাদের সামনে বড়দের এমন কোন আচরন করা যাবে না যা থেকে তারা খারাপ কিছু শিখে। তাদের সামনে ভাল ব্যবহার করতে হবে যেটা তারা চর্চা করবে।

সভাপতির বক্তব্যে মোঃ আনোয়ার হোসেন চৌধুরী ছোটদের হাতে স্মার্টফোন তুলে না দেওয়ার জন্য অভিভাবকদের অনুরোধ করেন।

এছাড়া গণিত বিভাগের ছাত্র ছাত্রীদের উপস্থাপনায় একটি ছোট নাটিকা প্রদর্শিত হয়।