মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

কাজের ক্ষেত্রে আমার ক্ষুধা অনেক বেশি : জলি



172553joly_kalerkantho_picআমার ক্ষুধা অনেক বেশি। বলা যায় কাজের ক্ষেত্রে ক্ষুধাটা আমার অতিমাত্রায়। একটা কাজ করতে চাইলে সেটাকেও পুরোপুরি কনসেন্ট্রেশনের সাথে শেষ করতে চাই। একইভাবে আমার কাজের ফিডব্যাকও চাই। এই যে ধরেন আমার ছবি নিয়তি যে পরিমাণ ব্যবসা করছে কিংবা আমার কাছে যে রিপোর্ট আসছে তাতেও আমি সন্তুষ্ট নই কেন না আমি আরও চাই আমার ক্ষুধা আসলেই বেশি। বলছিলেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার নতুন মুক্তিপ্রাপ্ত ‘নিয়তি’ ছবির নায়িকা জলি। সম্প্রতি ঢাকাসহ সারাদেশে ‘নিয়তি’ ছবিটি মুক্তি পায়। জাজ জানাচ্ছে এই ছবির ব্যবসা তাঁদের প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে গেছে। সেই অনুযায়ী ‘সফল’ অভিনেত্রী জলির সন্তুষ্ট হবার কথা, উচ্ছ্বসিত হবার কথা কিন্তু জলি ততটা সন্তুষ্ট হতে পারছেন না। কতটা? জলিকে প্রশ্ন করা হয়েছিল এটাই। জলি বলেন, যদি বলেন আমাকে সফল অভিনেত্রী বলেন, তাহলে আমি বলবো আমি আরও সফল হতে চাই।  ‘নিয়তি’ ছবির বিষয়ে আমার প্রত্যাশাকে যদি ১০০ ভাগে ধরেন তাহলে বলবো আমি ৮০ ভাগ পেয়েছি। কিন্তু আমার ১০০তে ১০০-ই পাওয়া চাই। আমি এখন আরো ৮-১০ দিন নিয়তি নিয়েই পড়ে থাকতে চাই। এই ছবির পুরো সফলতাকে আমি কাজে লাগাতে চাই।  আগামীর প্রতিটি কাজে আমার উৎকর্ষ বাড়াতে চাই। নিয়তি মুক্তির আগেই আলোচনায় আসেন জলি ও শুভ। ছবির ক্যাম্পেইনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাঁরা ঢাকাই ফিল্মি দুনিয়ায় আলোচনায় আসেন। জলি বলেন, সব কিছুরই একটা নেগেটিভ-পজেটিভ বিষয় থাকে। আমরা পোস্টার লাগিয়েছি রাস্তায় রাস্তায়। আমরা বোঝাতে চেয়েছি দর্শক ও কুশীলবদের মধ্যে দূরত্ব বেশি নয়। সাধারণ মানুষের সাথে মিশে যেতে পেরেছি এটাই আমার কাছে বড় পাওয়া।    নিয়তি ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে অভিনেত্রী জলি নিজের পা পুড়িয়ে ফেলেন।  আহত অবস্থাতেই ছবির শুটিং-এ অংশ নেন।   প্রচুর পরিশ্রম করেছেন এই ছবির জন্য স্বাভাবিকভাবেই অন্য সবার চেয়ে জলির প্রত্যাশাটা একটু বেশিই হবে।