শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

সুনামগঞ্জে পানিবন্দি অর্ধ শতাধিক কমিউনিটি ক্লিনিক



sunamganjপাহাড়ি ঢল ও বর্ষণে প্লাবিত বিভিন্ন উপজেলার অর্ধ শতাধিক কমিউনিটি ক্লিনিক এখন পানিবন্দি অবস্থায় আছে। ‘বিচ্ছিন্ন এলাকা’য় নির্মিত এসব ক্লিনিকগুলোর রাস্তা ডুবে যাওয়ায় সেবাদাতা ও সেবাগ্রহিতারা গত কয়েক দিন ধরে বিপাকে রয়েছেন। ফলে স্বাস্থ্যসেবা বঞ্চিত হচ্ছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার লোকজন।
সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলায় ২১৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক চালু রয়েছে। এসব ক্লিনিকগুলোর বেশিরভাগই নির্মিত হয়েছে দুর্গম স্থানে। অনেক কমিউনিটি ক্লিনিকে যাওয়ার রাস্তা নেই। সম্প্রতি পাহাড়ি ঢলে বিভিন্ন উপজেলায় ঢলের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় অধিকাংশ কমিউনিটি ক্লিনিকের রাস্তাঘাট ডুবে গেছে। ফলে এসব কমিউনিটি ক্লিনিকে ঝুঁকির কারণে যেতে পারছেন না সেবাগ্রহিতারা। প্রাকৃতিক এই দুর্যোগের কারণে সেবাদাতারাও অনেক স্থানে যেতে পারছেন না বলে এলাকাবাসী জানান।
জানা গেছে, হাওর উপজেলা শাল্লা, দিরাই, জামালগঞ্জ, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর, ধর্মপাশা, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও সদর উপজেলার অধিকাংশ কমিউনিটি ক্লিনিকের রাস্তা পানিতে ডুবে আছে। তাছাড়া গ্রামীণ রাস্তাগুলো ডুবে যাওয়ায়ও অনেকে কমিউনিটি ক্লিনিকসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সহজে যোগাযোগ করতে পারছে না। ফলে তারা কাক্সিক্ষত স্বাস্থ্যসেবা বঞ্চিত হচ্ছেন।

জানা গেছে, সদর উপজেলার রঙ্গারচর, মনোহরপুর, শ্রীপুর, হবতপুর, তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণকূল, মোয়াজ্জেমপুর, পন্ডপসহ কয়েকটি উপজেলার অর্ধ শতাধিক কমিউনিটি ক্লিনিকের রাস্তা পানিতে ডুবে আছে। ক্লিনিকগুলো চারদিকে পানিবন্দি থাকায় সংশ্লিষ্টরা সাধারণ মানুষকে কাক্সিক্ষত সেবা দিতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন।

সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল হাকিম বলেন, কিছু কিছু কমিউনিটি ক্লিনিকের রাস্তা পানিতে ডুবে গেছে। ফলে ঝুঁকির কারণে সেবাগ্রহিতারা ক্লিনিকে গিয়ে সেবা নিতে ভয় পাচ্ছেন। তবে কমিউনিটি ক্লিনিকের সংশ্লিষ্ট কর্মীদের নিয়মিত ক্লিনিক পরিচালনা করার নির্দেশনা রয়েছে। এই সময়ে পানিবাহিত রোগের চিকিৎসার ব্যাপারে স্বাস্থ্য বিভাগ সজাগ রয়েছে বলে তিনি জানান।