সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

খালেদা জিয়ার সাজার দাবিতে গুলশানে অবস্থান



gulshan-human-chain-wb_182801মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজার দাবিতে রাজধানীর গুলশানে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটিসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মুক্তিযোদ্ধাসহ কয়েকশ’ বিক্ষোভকারী গুলশান-২ নম্বর গোলচত্বরে অবস্থান নেন। সেখান থেকে তাদের বিএনপি চেয়ারপারসনের বাসভবন ঘেরাও করতে যাওয়ার কথা রয়েছে।
এর আগে গত সোমবার রাজধানীতে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে খালেদা জিয়া বলেন, ‘আজকে বলা হয় এত লক্ষ লোক শহীদ হয়েছে। এটা নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে।’
উল্লেখ্য, গুলশান-২ নম্বর গোলচত্বরের পাশে ৭৯ নম্বর সড়কে খালেদা জিয়ার বাসভবন ও ৮৬ নম্বরে তার কার্যালয়।
একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবির গুলশান-২ নম্বর গোলচত্বরে সাংবাদিকদের জানান, মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় প্রথমেই খালেদা জিয়াকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করার জন্য সরকারের কাছে দাবিও জানান তিনি।
এছাড়া মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কটূক্তি করা বন্ধের জন্য ‘মুক্তিযুদ্ধ অস্বীকার অপরাধ আইন’ করারও দাবি জানান শাহরিয়ার কবির।
গুলশান-২ নম্বর গোলচত্বরে নির্মূল কমিটি ছাড়াও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সন্তান ও স্বজনেরা অবস্থান নিয়েছেন। সেখানে খালেদা জিয়ার সাজার দাবিতে নানা স্লোগান ও মিছিল করছেন তারা।
এছাড়া এ অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত রয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি নাসির উদ্দীন ইউসুফ, নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল, শহীদজায়া শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী প্রমুখ।