বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

রোজায় বেসামাল সিলেটের ভোগ্যপন্যের বাজার



WP_20140712_003

শাকির হোসাইন:
রোজা শুরু হওয়ার পর থেকে প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেট অঞ্চলে বেড়েছে সব ধরনের ভোগ্যপন্যের দাম। গত ১০ দিনের ব্যবধানে কেজিতে দশ থেকে বিশ টাকা পর্যন্ত দাম বেড়েছে ছোলা, ডাল, পেঁয়াজ, চিনিসহ অধিকাংশ নিত্যপণ্যের। মাছ-মাংসের দামও বেড়েছে কেজি প্রতি ৩০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত। আর কাচা মরিচের ঝাল যেন ছড়িয়ে পড়েছে সকল সবজির গায়ে। সিলেটের বাজার নিয়ন্ত্রনে কার্যকর প্রদক্ষেপ না থাকায় স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত অনেক পন্যের দামও চলে গেছে নাগালের বাইরে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সবজির সবধরনের আইটেমে কেজি প্রতি ১০ থেকে ৩০ টাকা বেড়েছে। মাছের দাম একশ টাকারও বেশি কেজি প্রতি বাড়লেও মাংসের দাম বেড়েছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা করে। আর পিয়াজ-রসুন সহ সবধরনের মসলার দামও বেড়েছে হুহু করে। বেগুন কোথাও কোথাও ৭০-৮০ টাকা বেড়েছে বলে জানান ক্রেতারা। ‘তবে বাচতে হলে না কেনার কোনো উপায় নেই বলেও মন্তব্য করেন নগরীর শিবগঞ্জের বাসিন্দা মনজুর আহমদের।

অন্যদিকে ব্যবসায়ীরা বলেন, ‘পেঁয়াজের দাম চড়া। এই কয়েকদিনে দাম আরও বেড়েছে। তবে আদা ও রসুনের দাম কিছুটা স্থিতিশীল রয়েছে।’ এদিকে সরবরাহ সংকটে ছোলার দাম আবারও কেজি প্রতি এক টাকা বেড়ে গেছে। চড়া অন্যান্য ডালের দামও। বেশি দামে কেনায় বেশি দামে বিক্রি করা ছাড়া বিকল্প নেই বলে জানিয়েছেন অধিকাংশ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। তবে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বৃদ্ধির ফলে এসব পন্যের দাম বাড়াতে বাধ্য হয়েছেন বলে জানিয়েছেন কালিঘাটের আড়ৎদাররা।