শনিবার, ৩০ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

মহাকাশে শুটিংয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন টম ক্রুজ!



বিনোদন ডেস্কঃ 

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানিয়েছে, শূন্যে একটি ছবির শুটিং করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন হলিউড তারকা টম ক্রুজ। নাসার প্রধান জিম ব্রাইডেনস্টিন মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে মঙ্গলবার লিখেছেন, ‘টম ক্রুজের সঙ্গে মহাকাশে একটি ছবির কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমরা উচ্ছ্বসিত!’

টম ক্রুজের সঙ্গে হাত মেলানোর কারণ জানিয়ে নাসা প্রধান আরও বলেন, ‘আমাদের উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নতুন প্রজন্মের প্রকৌশলী ও বিজ্ঞানীদের অনুপ্রাণিত করতে জনপ্রিয় মাধ্যম দরকার।’
হলিউডভিত্তিক নিউজ পোর্টাল ডেডলাইন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আমেরিকান যানবাহন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান টেসলা ও স্পেসএক্স উদ্যোক্তা ইলন মাস্কের সঙ্গে প্রস্তুতি এগিয়ে নিচ্ছেন টম ক্রুজ। নাসার সঙ্গে তাদের জোর আলোচনা চলছে। এটাই হবে মহাকাশে প্রথম কোনও পূর্ণাঙ্গ চলচ্চিত্রের শুটিং।
অ্যাকশন-অ্যাডভেঞ্চারধর্মী ছবিটি এখন প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। তবে টম ক্রুজের প্রতিনিধিরা এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি।
বড় পর্দায় রুদ্ধশ্বাস দৃশ্যে নিজেই স্টান্ট করে দুঃসাহসিকতা দেখানোর জন্য ‘মিশন: ইমপসিবল’ তারকা টম ক্রুজের দুনিয়াজোড়া খ্যাতি আছে। মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘টপ গান: ম্যাভেরিক’-এ তিনি যুদ্ধবিমান চালিয়েছেন।
‘মিশন: ইমপসিবল’ সিরিজের সবশেষ তিনটি পর্বে চোখ ছানাবড়া করে দেওয়ার মতো একের পর এক স্টান্ট করেছেন টম ক্রুজ। ২০১৫ সালে ‘মিশন: ইমপসিবল-রোগ নেশন’-এ আকাশে উড়তে থাকা একটি বিমানের একপাশে তাকে ঝুলে থাকতে দেখা গেছে।
এর আগে ২০১১ সালে ‘মিশন: ইমপসিবল-গোস্ট প্রোটোকল’ ছবির একটি দৃশ্যে বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা ভবন দুবাইয়ের বুর্জ খলিফায় রুদ্ধশ্বাস দৃশ্যের শুটিং করেন টম ক্রুজ! দুই বছর আগে‘মিশন: ইমপসিবল-ফলআউট’ ছবিতে এক ভবন থেকে অন্যটির ছাদে লাফ দেওয়ার সময় তার পায়ের গোড়ালি ভেঙে যায়। তাই কয়েক সপ্তাহ সেটে যাওয়া হয়নি তার।
ইতালির ভেনিসে গত ফেব্রুয়ারিতে ‘মিশন: ইমপসিবল’ সিরিজের সপ্তম কিস্তির শুটিংয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে তা ভেস্তে গেছে। ক্রিস্টোফার ম্যাককোয়ারির পরিচালনায় একসঙ্গে দুটি ‘মিশন: ইমপসিবল’ ছবির কাজ হাতে নিয়েছেন তিনি।
শুটিংয়ের জন্য পৃথিবী ছেড়ে যাওয়ার ভাবনা টম ক্রুজের মাথায় ঢুকিয়েছেন ‘টাইটানিক ও‘অ্যাভাটার’-এর পরিচালক জেমস ক্যামেরন। তাও ১৫ বছর আগে। ২০১৮ সালে তিনি নিজেই এ তথ্য জানান। আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে গিয়ে ত্রিমাত্রিক প্রামাণ্যচিত্রের শুটিংয়ের জন্য ২০০০ সালে রুশদের সঙ্গে আলোচনা করেছিলেন ক্যামেরন।