শনিবার, ৩০ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বিচার বিভাগীয় তদন্তে দোষী সাব্যস্থ শাবি ছাত্রলীগ সভাপতি পার্থ সহ দুই কর্মী



sust bsl

সিলেট24 রিপোর্ট:

গত ৮ এপ্রিল শাবি ক্যাম্পাসে ঘুরতে গিয়ে যৌন হয়রানী ও মারধরের ঘটনায় সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের গঠিত বিচার বিভাগীয় তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দিয়েছেন বিচারক সিলেটের সহকারী জেলা জজ তাসলিমা শারমিন।

আজ সকালে সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের কাছে তিনি এ প্রতিবেদন দাখিল করেন। গত ১২ এপ্রিল ৩ জনের নামোল্লেখ করে ৫ জনকে আসামী করে সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে মামলা করেন যৌন হয়রানী ও মারধরের শিকার মেয়েটির মা মাহমুদা খানম। সেদিনই  বিচারক মোহিতুল হক মামলাটি আমলে নিয়ে এ বিষয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেন।

প্রতিবেদন শাবি ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিবন চক্রবর্তী পার্থ সহ আরো দুইজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘সঞ্জিবন চক্রবর্তী পার্থ’র সহযোগীতায় ছাত্রলীগ কর্মী সাজ্জাদ রিয়াদ ও সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী ছাত্রলীগকর্মী মাহমুদুল হক রুদ্র সরাসরি ঘটনায় জড়িত ছিল’।

বাদীপক্ষের আইনজীবী মশরুর চৌধুরী শওকত আদালতে বিচারবিভাগীয় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিলেটের পাঠানটুলা দ্বিপাক্ষিক উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেওয়া ওই ছাত্রী গত ৪ এপ্রিল বিকেলে তার ফুফাতো ভাইয়ের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ে বেড়াতে যান। এসময় শহীদ মিনার এলাকায় কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মীরা তাকে উত্ত্যক্ত করার পাশাপাশি শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই সাংবাদিক এর প্রতিবাদ করলে তাদের ওপর হামলা চালান বিবাদীরা। হামলায় আহত হন সাংবাদিক ডেইলি অবজারভারের সিলেট প্রতিনিধি সরদার আব্বাস ও দৈনিক সকালের খবরের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সৈয়দ নবীউল আলম দিপু।