রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বারাইছো-বারাইছো, তোমরাও বারাইছো তাইলে তোমরাও শেষ!



 

সোহানুর রহমান সোহানঃ দুই বোনকে নিয়ে বাহিরে ঘুরতে বের হয়েছে বড় ভাই। এমন সময় এক পাগল এসে চিল্লাইয়া বলতেছে “বারাইছো-বারাইছো, তোমরাও বারাইছো তাইলে তোমরাও শেষ!” দেখ নাই বাহিরে সব মা বোনদের কি অবস্থা হইতেছে। ভাইয়ের কাছে থাকলেও বোনের নিরাপত্তা নাই, স্বামীর কাছে থাকলেও বউয়ের নিরাপত্তা নাই। যাও যাও বাসায় যাও!

এমনি প্রতিবাদী পথনাটক সেই সাথে বিদ্রোহী কবি নজরুলের “জাগো নারী জাগো বহ্নি-শিখা, জাগো স্বাহা সীমন্তে রক্ত টিকা” গানের সাথে নৃত্যর মাধ্যমে এই নরপিশাচদের বিরুদ্ধে নারীদের জেগে উঠার আহবান। এমন আরও নানা প্রতিবাদি গান, কবিতা নিয়ে দেশব্যাপী ধর্ষণ ও নারীদের উপর বর্বতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদি সাংস্কৃতিক সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ (বৃহস্পতিবার) ১২ টায় সুনামগঞ্জের ট্রাফিকপয়েন্টে প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশের আয়োজন করা হয়। নাট্যকর্মীদের সংগঠন বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার এর বন্ধন থিয়েটার, হাছন রাজা অঞ্চল সুনামগঞ্জ এই সাংস্কৃতিক সমাবেশের আয়োজন করে।
এসময় প্রতিবাদী বিভিন্ন গান, নাচ, কবিতা ও পথ নাটক পরিবেশন করেন তারা।

নাচ, গান, কবিতা অথবা নাটক এর মাধ্যমে প্রদর্শনটা ভিন্ন হলেও প্রতিবাদের ভাষা ছিলো সবার একটাই। দেশব্যাপী যেভাবে ধর্ষনের মতো নিকৃষ্ট কাজ বেড়েই চলছে সেটা খুটি থেকে উপড়িয়ে ফেলার এখনি সময়। ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করে আগামীর ভবিষ্যৎ কে সুন্দর করার। নারী-পুরুষ, দল মত শ্রেণী নির্বিশেষে সময় এসেছে সবাই এক হয়ে এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার। নাহলে আগামীতে আমরা সবাই এই নরপশুদের শিকার হবো।

গ্রাম থিয়েটার হাছন রাজা অঞ্চলের সমন্বয়ক ও বন্ধন থিয়েটারের সভাপতি সামির পল্লবের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক সংগঠক অ্যাডভোকেট অলক ঘোষ চৌধুরী,জেলা উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, থিয়েটার সুনামগঞ্জের দলপ্রধান দেওয়ান গিয়াস চৌধুরী, সৃষ্টি থিয়েটারের সভাপতি সামিনা চৌধুরী মনি, রাজু আহমেদ, প্রোসেনিয়াম থিয়েটারের দলনেতা সাদিকুর রহমান খান রুবেল ও আবু তাহের প্রমুখ ।

এছাড়াও এসময় উপস্থিত ছিলেন রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক এমরানুল চৌধুরী, বন্ধন থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক অমিত বর্মন, রাজীব আহমেদ, আশীষ বর্মণ সহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক, বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

সাংস্কৃতিক সমাবেশে প্রতিবাদী নাচ পরিবেশন করেন দৃষ্টি তালুকদার, কবিতা
মো.সৈয়দ আহমদ, গান করেন আলাউর রহমান এবং পথনাটকে অভিনয় করেন আমজাদ, শিপা,ঝর্না, সৈয়দ।