শনিবার, ৬ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

একই দিনে মুক্তি পাচ্ছে ‘রুস্তম’ ও ‘মহোঞ্জোদারো



bdp_rostom

অক্ষয় কুমারের ‘রুস্তম’ আর হৃতিক রোশনের ‘মহোঞ্জোদারো’। একই দিনে মুক্তি পাচ্ছে ছবি দুটি। তাই ব্যবসা নিয়ে একে অপরের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে। যদিও দুটি ছবি দুটি আলাদা ঘরানার। নানাবতী কেসের উপর তৈরি রুস্তম। আর মহোঞ্জোদারো সিন্ধু সভ্যতার পটভূমিকায় তৈরি এক প্রেমগাথা। তবু মনে করা হচ্ছে, এক্ষেত্রেও ‘দিলওয়ালে’ ও ‘বাজিরাও মস্তানি’ ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি হতে চলেছে। একই দিনে রিলিজ এবং সিঙ্গল স্ক্রিন না পাওয়ায় সাংঘাতিক ভুগিয়েছে শাহরুখ খানকে। ‘রুস্তম’ ও ‘মহোঞ্জোদারো’ ছবি দুটি এখন শুধুই দর্শকদের সামনে আসার অপেক্ষায়। তার আগে কোন ছবি কোন জায়গায় দাঁড়িয়ে তা জানা দরকার।

‘মহেঞ্জোদারো’ ছবির শুটিং শেষ হয় ৯ এপ্রিল আর রুস্তমের ১৫ এপ্রিল। অক্ষয় যেখানে ছবি শেষ করতে ৪৫ দিন সময় নেন, সেখানে হৃতিকের সময় লেগেছে ১০১ দিন। ফলে ছবির বাজেটের দিকে তাকালে এমনিতেই এগিয়ে ‘রুস্তম’। দ্বিতীয়ত, দুটো ছবির ট্রেলারই প্রকাশিত হওয়ার পর বিভিন্নভাবে সমালোচিত হয়েছে। একদিকে ‘রুস্তম’ ছবিতে অক্ষয়ের পোশাকে ভুল, অন্যদিকে মহোঞ্জোদারোর ট্রেলারে হৃত্বিকের হাতে লোহার অস্ত্র নিয়ে সমালোচনা হয়েছে বিস্তর। কিন্তু ট্রেলার রিলিজের পর থেকেই ‘রুস্তম’ এর ট্রেলার দেখেছেন প্রায় ১.৫ কোটি বেশি দর্শক। কাজেই অ্যাডভান্টেজ অক্ষয় কুমার।   এবার আসি গানের কথায়। ‘রুস্তমে’র প্রথম গান তেরে সঙ্গ ইয়ারা মুক্তি পায় ৫ জুলাই। এই গান অফিসিয়াল সাইটে দেখেছেন প্রায় ১৫ লক্ষ দর্শক। অন্যদিকে ৬ জুলাই মুক্তি পাওয়া ‘মহোঞ্জোদারো’র প্রথম গান তু হ্যায় দেখেছেন মাত্র সাড়ে ১০ লক্ষ দর্শক। দুটো ছবিরই অডিও জুক বক্সে অবশ্য এগিয়ে মহোঞ্জোদারো। ৫ জুলাই মুক্তি পেয়েছে মহোঞ্জোদারোর অডিও জিক বক্স। আর তা শুনেছেন প্রাস সাড়ে ৭ লক্ষ শ্রোতা। যেখানে ১৩ জুলাই প্রকাশ পাওয়া রুস্তমের গান পছন্দ করেছেন মাত্র ৪ লক্ষ শ্রোতা। কিন্তু এই এক্সট্রা পয়েন্টটা কী হৃত্বিক রোশনকে দেওয়া যায়! নাকি পুরোটাই এ আর রহমানের কৃতিত্ব।